সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » বিনোদন » কর ফাঁকির অভিযোগ সালমান ও তার বাবার বিরুদ্ধে

কর ফাঁকির অভিযোগ সালমান ও তার বাবার বিরুদ্ধে

salman-khanবিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না সালমানের। বলিউডের এই সুপারস্টার একদিকে যেমন সুপারহিট সব সিনেমা দিয়ে দর্শকদের মন জয় করে চলেছেন, অন্যদিকে ব্যক্তিগত জীবনে তিনি আবার নানা কর্মকান্ডের কারণে বিতর্কিতও হচ্ছেন।

 সম্প্রতি পানির কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এই তারকার বিরুদ্ধে। তবে মুম্বাই নয়, ইন্দোর পৌরসভা (আইএমসি) সালমান খান ও তার বাবা সেলিম খানের বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ এনেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ইন্দোরের ওল্ড পালাসিয়া এলাকায় সালমানদের পৈতৃক সম্পত্তি রয়েছে। ইন্দোর পৌরসভার অভিযোগ ২০০৬ সাল থেকে প্রায় ২৫ হাজার টাকা কর বাকি রয়েছে তাদের। ২০১৪ সালে পৌরসভার পক্ষ থেকে একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল সালমান ও তার বাবার নামে। তখন বলা হয়েছিল, প্রায় ২৩ হাজার টাকা পানির কর বাকি রয়েছে তাদের। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কেউ তার কোনো জবাব দেয়নি বলে অভিযোগ। করের পরিমাণ এ বছর বেড়ে হয়েছে ২৫ হাজার ৩২১ টাকা।

আইএমসির কমিশনার রাকেশ সিংহের কথায়, ‘সালমান তো আর পাঁচটা করদাতার মতোই। সেলিব্রিটি মানে তো এই নয় যে, যে কেউ কর ফাঁকি দিতে পারে। কারো যদি কর দেওয়া বাকি থাকে, তা হলে তাকে সেই টাকাটা দিতেই হবে।’

 তবে গুল্লু মির্জা নামে ইন্দোরে সালমানদের এক আত্মীয় দাবি করেছেন, তাদের পরিবারের কারো কোনো কর বাকি নেই। নাইম খান নামে অপর এক আত্মীয়ের দাবি, তিনি সেলিম খানের থেকে বেশ কিছু সম্পত্তি কিনেছেন। কিন্তু পৌরসভায় এখনো নাম পরিবর্তন হয়নি। আর তা থেকেই যত বিতর্ক হচ্ছে।

 অন্য দিকে পৌরসভার দাবি, যে পরিসেবা নম্বরের ভিত্তিতে পানির কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে সেই সম্পত্তির মালিকানা সালমান ও তার বাবার নামেই রয়েছে। ফলে কর মেটানোর দায়িত্ব তাদেরই নিতে হবে।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print