সোমবার , ২৩ এপ্রিল ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » বিশ্বের সপ্তম জনপ্রিয় ক্রিকেটার সাকিব

বিশ্বের সপ্তম জনপ্রিয় ক্রিকেটার সাকিব

sakibএকটা সময় পেলে, ম্যারাডোনা, মোহাম্মদ আলীদের অগণিত ভক্ত-সমর্থক ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল দুনিয়া জুড়ে। এঁদের ভক্ত সংখ্যা খেলা ছাড়ার এত বছরেও কিন্তু কমে যায়নি এতটুকু। একটা সময় মানুষ ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের জানত খেলার মাধ্যমেই। বড় বড় তারকাদের কাছে যাওয়া তো অনেক পরের ব্যাপার, মাঠে বসে তাদের দূর থেকে দেখাতেই বিরাট প্রাপ্তি হিসেবে মনে করত। যুগ পাল্টে গেছে।

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে বিশ্ব সেরা ক্রীড়া তারকারা এখন ভক্ত-সমর্থকদের সার্বক্ষণিক সঙ্গী হয়েই উঠেছেন। ফেসবুক ও টুইটারের কল্যাণে ক্রীড়া তারকাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম, এমনকি ব্যক্তিজীবনও ভক্তদের হাতের নাগালে।

ফেসবুকের ভক্ত সংখ্যা দিয়ে এখন খুব সহজেই বিচার করা যায় একজন ক্রীড়াবিদের জনপ্রিয়তা। যে খেলোয়াড় তাঁর ক্রীড়াশৈলীতে যতটা আলোচিত, তাঁর ফেসবুক, টুইটার ভক্ত সংখ্যাও তত বেশি। ফেসবুকে পৃথিবীর অনেক বাঘা বাঘা খেলোয়াড়ের সঙ্গে এখন ভক্ত সংখ্যায় টক্কর দিচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদেরাও। ফেসবুকের ভক্ত সংখ্যার বিবেচনাতেই বাংলাদেশে ক্রীড়াক্ষেত্রে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় নামটি হচ্ছে সাকিব আল হাসান। শুধু তাই নয়, ভক্ত সংখ্যার দিক দিয়ে পৃথিবীর শীর্ষ একজন ক্রীড়াবিদের তালিকায় আছেন তিনি। এখানে ৯৫ তম স্থানে থাকলেও ভক্ত সংখ্যার দিক দিয়ে পৃথিবীর শীর্ষ দশজন (তাঁর অবস্থান সাত) ক্রিকেটারের একজন হচ্ছেন বাংলাদেশের এই ক্রিকেটিং আইকন।

এখন দেখা যাক ফেসবুকে ভক্ত সংখ্যায় সবচেয়ে এগিয়ে কে! তিনি আর কেউই নন, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ফেসবুকে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা ১০ কোটি ২০ লাখ। ৭ কোটি ৬০ লাখ অনুসারী নিয়ে এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন লিওনেল মেসি। নেইমারের অবস্থান তৃতীয়, তাঁর অনুসারী সংখ্যা ৫ কোটি ১০ লাখ। এখানে একটি বিষয় উল্লেখ করা যায়, ফেসবুকে অনুসারীর দিক দিয়ে শীর্ষ দশ ক্রীড়াবিদের আটজনই ফুটবলার।
ক্রিকেটারদের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেটার (ফেসবুক অনুসরণের দিক দিয়ে) শচীন টেন্ডুলকার। এই তালিকায় তাঁর অবস্থান ১৩ তম। ক্রিকেটারদের তালিকায় সাকিবের আগে আছেন শচীন টেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি, যুবরাজ সিং আর রোহিত শর্মা। এরা কিন্তু সবাই ভারতীয়।
জনসংখ্যা আধিক্যের দেশ ভারতের ক্রিকেটারদের বাইরে ফেসবুকে ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড় আমাদের সাকিবই। তাঁর ভক্ত সংখ্যা ৫৭ লাখ ৬০ হাজার। তবে ক্রিকেটারদের তালিকার শীর্ষ দশে কিন্তু সাকিব একা নন, তাঁর পেছনে (নয় নম্বরে) আছেন মুশফিকুর রহিমও। তাঁর অনুসারীর সংখ্যা ৪২ লাখ। সকল ক্রীড়াবিদদের মধ্যে মুশফিকের অবস্থান ১৩১ নম্বরে।

সাকিবের অনুসারীদের মধ্যে ৭৩ শতাংশ হচ্ছে বাংলাদেশি। বাকি ২৭ শতাংশ অনুসারী হয়েছেন বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে। ভারতে সাকিবের ভক্ত সংখ্যা সাত লাখ। পাকিস্তানেও সাকিবের দেড় লাখ ভক্ত আছে। সংযুক্ত আরব আমিরাত আর সৌদি আরবেও সাকিবের এক লাখ করে ভক্ত। বিশ্বের ৪৫টি দেশে সাকিবের ভক্ত সংখ্যা হাজারের ওপর। এক পরিসংখ্যান থেকে জানা যায় সাকিবের ফেসবুক পেজে অনুসারী সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ে আট হাজার করে। সপ্তাহে এই বৃদ্ধির হার ৬০ হাজার। মাসে সাকিবের অনুসারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পায় তিন লাখ।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print