বৃহস্পতিবার , ১৯ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশীসহ আরও ১৪০০ জন উদ্ধার

ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশীসহ আরও ১৪০০ জন উদ্ধার

Bangladesi-rescueইন্দোনেশীয় উপকূল থেকে আরও ১৪০০ বিদেশগামীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এরা সবাই বাংলাদেশী ও মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিম। ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়ার মধ্যবর্তী সমুদ্রাঞ্চল থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইন্দোনেশীয় কর্তৃপক্ষ। খবর এএফপির।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার লঙ্কায়ী দ্বীপ সংলগ্ন উপকূল থেকে আরও এক হাজার বিদেশগামীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এরা সবাই বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা মুসলিম।

লঙ্কায়ী পুলিশের উপ-প্রধান জামিল আহমেদ জানান, আমাদের ধারণা তিনটি নৌকায় এক হাজার ১৮ বিদেশগামী রয়েছে। আগামী দিনগুলোতে আরও বিদেশগামীবাহী নৌকা পাওয়া যেতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে দেশটির আচেহ প্রদেশের উদ্ধার দলের প্রধান বুদিওয়ান এএফপিকে জানিয়েছিলেন, সোমবার সকালে পূর্ব আচেহ থেকে প্রায় ৪০০ বিদেশগামীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

দেশটির আচেহ প্রদেশের সমুদ্রসীমা থেকে গত রবিবার মিয়ানমার ও বাংলাদেশ থেকে যাওয়া প্রায় ৬০০ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে মোট উদ্ধার হওয়ার সংখ্যা প্রায় দুই হাজারে দাঁড়িয়েছে।

উদ্ধার হওয়া বিদেশগামীদের বিভিন্ন আশ্রয় শিবির, ক্লিনিক ও স্থানীয়দের বাড়িতে খাবার এবং চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে গত রবিবার উদ্ধার করা বিদেশগামীদের সংখ্যা পুনর্গণনা করেছে ইন্দোনেশীয় কর্তৃপক্ষ। প্রথমে উদ্ধার হওয়াদের সংখ্যা ৪৬৯ জানানো হলেও প্রকৃত সংখ্যা ৫৭৩ জন বলে সোমবার জানানো হয়েছে।

জাকার্তার অভিবাসন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধান স্টিভ হ্যামিল্টন জানান, ওই বিদেশগামীদের মালয়েশিয়া নেওয়ার জন্য পাচার করে আনা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘লোকগুলো (বিদেশগামী) ভেবেছিল তারা মালয়েশিয়ায় পৌঁছেছে, আসলে তারা ইন্দোনেশিয়ায়। মানবপাচারকারীরা তাদের এখানে ফেলে রেখে গেছে।’

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে প্রায় ২৫ হাজার রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশীকে সমুদ্রপথে পাচার করা হয়েছে। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এ হার প্রায় দ্বিগুণ।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print