শুক্রবার , ২২ জুন ২০১৮
মূলপাতা » প্রধান খবর » চট্টগ্রামে ব্যাংক ডাকাতির চেষ্টা, নিরাপত্তাকর্মী হত্যা

চট্টগ্রামে ব্যাংক ডাকাতির চেষ্টা, নিরাপত্তাকর্মী হত্যা

bank murderচট্টগ্রাম মহানগীরর পাঁচলাইশ থানার মুরাদপুর এলাকায় আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের নৈশ প্রহরীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুবৃর্ত্তরা। পুলিশের দাবি, ব্যাংক ডাকাতির পথে বাধা হওয়ায় নৈশ প্রহরীকে দুবৃর্ত্তরা হত্যা করেছে।

শুক্রবার রাত ১০টার দিকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ইব্রাহীম (৩৪) ব্যাংকটির নিজস্ব প্রহরী ছিলেন। তিনি চট্টগ্রামের চন্দনাইশ পৌরসভার আলী আহমদের ছেলে।

নিহতের স্ত্রী জানায়, বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে শুক্রবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ইব্রাহীমের ডিউটি ছিল। কিন্তু ডিউটি শেষে শুক্রবার সকালে না ফেরায় ফোনে তার সাথে যোগাযোগ করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি। এরপর সন্ধ্যায় ফোনে ব্যাংক ম্যানেজার সালামত উল্লাহকে বিষয়টি জানানো হয়।  পরে পুলিশ ও ভবনের মালিককে নিয়ে ম্যানেজার রাত ৯টার দিকে ব্যাংকে এসে দেখেন গলা কাটা অবস্থায় ইব্রাহীমের লাশ মেঝেতে পড়ে আছে। আর ব্যাংকের পেছনের জানালার গ্রিল কাটা।

শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন থাকায় ঘটনার প্রায় ৪৪ ঘণ্টা পর রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিষয়টি জানাজানি হয়।

ব্যাংকের ভেতরে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে পুলিশ কর্মকর্তারা জানায়, তিন তলা ভবনের ২য় তলায় অবস্থিত ব্যাংকটিতে বৃহস্পতিবার রাত ২টা ৩০ মিনিটে পেছনের জানালার গ্রিল কেটে প্রবেশ করে ২৫-৩০ বছর বয়সী তিন ডাকাত। গায়ের শার্ট খুলে সেগুলোকে তারা মুখোশ হিসেবে ব্যবহার করে। এরপর তারা ব্যাংকের সামনের রুমের সোফায় ঘুমন্ত নৈশ প্রহরী ইব্রাহিমের মাথায় রড দিয়ে আঘাত করে। এসময় প্রহরী ইব্রাহিম উঠে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলে তাকে দুইজন ডাকাত চেপে ধরে এবং অন্য একজন গলা কেটে জবাই করে। পরে তারা ব্যাংকের ভল্ট ভাঙার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। এরপর রাত ৩টার দিকে ব্যাংক ত্যাগ করে প্যান্ট ও শার্ট-গেঞ্জি পরিহিত ডাকাতরা।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে এসে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ডিবি) এস এম তানভীর আরাফাত বলেন, ‘ব্যাংকটির সিসি ক্যামেরা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ৩ জনের একটি ডাকাত দল বৃহস্পতিবার রাতে ব্যাংকটিতে হানা দেয়। এসময় ব্যাংকের নৈশ প্রহরীকে বটি দিয়ে জবাই করে হত্যা করে। এরপর তারা প্রায় ২০ থেকে ২৫ মিনিট বটি দিয়ে ভল্টের তালা ভাঙার চেষ্টা করে। তবে অনভিজ্ঞ হওয়ায় তারা সফল হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘ডাকাতরা প্রায় ৩০ মিনিট ব্যাংকের ভেতরে অবস্থান নেয়। এরপর তারা যে পথ দিয়ে প্রবেশ করেছে, ঠিক সে পথ ব্যবহার করে বের হয়েছে। এ ঘটনায় ব্যাংকের ভেতর থেকে একটি ছোরা, বটি ও রড উদ্ধার করা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে ব্যাংকের কিছু খোয়া যায়নি মনে হচ্ছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে ও লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে।’

ঘটনাস্থলে থাকা আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের ম্যানেজার সালামত উল্লাহ বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাতে নৈশ প্রহরী ইব্রাহিমের ডিউটি ছিল। শুক্রবার সকালে বাড়িতে না ফেরায় তার স্ত্রীর ফোন পেয়ে খোরশেদ নামে আরেকজন নিরাপত্তারক্ষীকে ব্যাংকে পাঠানো হয়। খোরশেদ এসে দরজার গ্রিলের ভেতর ‌আয়নার ফাঁক দিয়ে দেখেন, ইব্রাহিম রক্তাক্ত অবস্থায় ব্যাংকের ক্যাশ শাখার সামনে মেঝেতে পড়ে আছে। তার শরীরের উপর লুঙ্গি এবং কাথা মোড়ানো। এরপর পুলিশ নিয়ে ব্যাংকে এসে দেখি মেঝেতে লাশ পড়ে আছে। ব্যাংকের কিছু খোয়া যায়নি মনে হচ্ছে। নিহত ইব্রাহিম ১৪ বছর ধরে আমাদের ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায় কর্মরত ছিল।’

উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে হাটহাজারীর কুয়াইশ বুড়িশ্চর এলাকায় অগ্রণী ব্যাংকের শাখায় ছাদ কেটে ডাকাতির চেষ্টা চালায় একদল ডাকাত। এসময় ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় একজনকে ধরে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print