সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » ৩৩২ রানে অলআউট বাংলাদেশ

৩৩২ রানে অলআউট বাংলাদেশ

Mominulপাকিস্তানের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন ৪ উইকেটে ২৩৬ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে স্বাগতিক বাংলাদেশ। তবে দিনের শুরুতে সাকিব আল হাসানের উইকেট হারিয়ে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় টাইগাররা। এরপর ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে অভিষিক্ত সৌম্য সরকারকে নিয়ে বাংলাদেশকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন মুশফিকুর রহিম। এই দুজনের জুটিতে সাবধানে এগুচ্ছিল টাইগাররা।

কিন্তু হঠাৎ ছন্দপতন ঘটে বাংলাদেশের। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকা ২৭ রানে শেষ ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩২ রানে গুটিয়ে যায়।

বুধবার টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ৫ উইকেটে ৩০০ রান পেরিয়ে যাওয়ার পরই ছন্দপতন ঘটে টাইগারদের। ৭ রানের ব্যবধানে ৩ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে টাইগাররা। একে একে ফিরে যান সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম ও তাহজুল ইসলাম। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি শহিদ ও রুবেলও।

ব্যক্তিগত ৩৩ রান করে হাফিজের বলে আসাদ শফিককে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সৌম্য। পরের ওভারে ইয়াসির শাহর বলে মিসবাহকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরের পথ ধরেন অধিনায়ক মুশফিক। একটু পর ইয়াসির শাহর বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন তাইজুল। এরপর শহিদ ও শুভাগত মিলে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। তবে ৩ রানের ব্যবধানে শেষ ২ উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশকে ৩৩২ রানে গুটিয়ে দেন ওয়াহাব রিয়াজ।

বাংলাদেশের হয়ে মুমিনুল হক ৮০, ইমরুল ৫১, মাহমুদুল্লাহ ৪৯, মুশফিক ৩২ ও সৌম্য করেন ৩৩ রান। ২৫ রান করে করেন সাকিব ও তামিম।

পাকিস্তানের হয়ে ওয়াহাব রিয়াজ ও ইয়াসির আলী ৩টি করে উইকেট লাভ করেন। ২টি করে উইকেট নেন হাফিজ ও জুলফিকার বাবর।

মঙ্গলবার সকালের প্রথম সেশনের প্রথম দিকে জুলফিকার বাবরের করা বলে ডাউন দ্য ট্রাকে এসে খেলতে গিয়ে লেগ স্লিপে ক্যাচ তুলে দেন সাকিব। দুর্দান্ত ক্যাচ লুফে নিয়ে সাকিবকে সাজঘরের পথ দেন আসাদ শফিক।

সাকিব আউট হয়ে গেলে নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামেন অভিষিক্ত সৌম্য সরকার। দুজনে দেখে-শুনে ইনিংস মেরামত করছেন। দুজনের দারূণ ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ ৩০০ পেরিয়ে গেছে। তবে এরপরই ফিরে যান সৌম্য। হাফিজের বলে আসাদ শফিকের দুর্দান্ত এক ক্যাচে ফিরে যান তিনি। পরের ওভারে ফিরেন মুশফিক। একটু পর সাজঘরের পথ ধরেন তাউজুলও।

মঙ্গলবার টেস্টের প্রথম দিন ততোটা সফল না হলেও ওয়াহাব রিয়াজ বাংলাদেশের শেষ দুটি উইকেট তুলে নিয়ে দলকে ম্যাচে ফেরান।

এর আগে মঙ্গলবার মুমিনুল, ইমরুল ও মাহমুদুল্লাহর দৃঢ়তায় প্রথম দিনটি ভালোই কাটিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম দিনের শেষ ওভারের পঞ্চম বলে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আউট হওয়ার আগে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ্ ৮০ রান করেন মুমিনুল। এছাড়া ইমরুল ৫১ ও মাহমুদুল্লাহ করেন ৪৯ রান। তামিম ফিরে যান ২৫ রান করে।

এই টেস্টে সৌম্য সরকারের পাশাপাশি পেসার মোহাম্মদ শহিদের অভিষেক হয়েছে।

অন্যদিকে পাকিস্তানের হয়েছে ওপেনার সামি আসলামের। তবে দল থেকে বাদ পড়েছেন অভিজ্ঞ সাঈদ আজমল।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print