সোমবার , ১৬ জুলাই ২০১৮
মূলপাতা » ক্রিকেট » দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৩৬

দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৩৬

CRICKET-BAN-PAKদুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করে ৮৯.৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২৩৬ রান। মুমিনুল হক ৮০ রানে আউট হন। সাকিব আল হাসান ১৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন। মাহমুদউল্লাহ ৪৯, ইমরুল কায়েস ৫১ ও তামিম ইকবাল ২৫ রান করে ফিরে গেছেন।

মঙ্গলবার খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সতর্ক সূচনা করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। দেখেশুনে খেলে ২৬.২ ওভারে দলীয় ফিফটি করেন এই দুজন। পাকিস্তানি স্পিনার ইয়াসির শাহর করা ওই ওভারের শেষ বলে বিদায় নেন তামিম। ফলে ৫২ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙে। আজহার আলীর হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ২৫ রান করেন বাঁহাতি তামিম।। তার ৭৪ বলের ইনিংসে ছিল ৩টি চারের মার।তামিমের বিদায়ের পর দ্বিতীয় উইকেটে মুমিনুল হকের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ইমরুল। প্রথম সেশনে ৩০ ওভারে ১ উইকেটে ৬০ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যান দুজন। বিরতির পর ফিরে এসে দলকে ভালোই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন ইমরুল-মুমিনুল। ইনিংসের ৪১তম ওভারে মোহাম্মদ হাফিজের প্রথম বলে ২ রান নিয়ে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট ফিফটি পূরণ করেন ইমরুল। কিন্তু পরের বলেই হাফিজকে ফিরতি ক্যাচ দেন এই বাঁহাতি। ১৩০ বলে ৬টি চারের সাহায্যে ৫১ রান করেন ইমরুল।

দলীয় ৯২ রানে ইমরুলের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন মাহমুদউল্লাহ। মুমিনুলের সঙ্গে দলের হাল ধরেন এই ডানহাতি। দুজন মিলে দলের স্কোর দেড়শ` পূরণ করেন। ৫৯ ওভারে ২ উইকেটে ১৫০ রান নিয়ে চা বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

চা বিরতি থেকে ফিরে দলের স্কোর বড় করতে থাকেন দারুণ জুটি গড়ে তোলা মুমিনুল ও মাহমুদউল্লাহ। ইনিংসের ৭৯তম ওভারে জুলফিকার বাবরের বলে সিঙ্গেল নিয়ে ফিফটি পূরণ করেন মুমিনুল। এটা তার অষ্টম টেস্ট ফিফটি এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম। গত বছরের নভেম্বরে নিজের শেষ টেস্ট ইনিংসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৩১ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন এই বাঁহাতি।

মুমিনুলের ফিফটির পর মাহমুদউল্লাহও তার হাফ সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু ১ রানের জন্য ক্যারিয়ারের ১২তম ফিফটি মিস করেন এই ডানহাতি। ইনিংসের ৭৪তম ওভারে ওয়াহাব রিয়াজের শেষ বলে ফিরে যান মাহমুদউল্লাহ। ওয়াহাবের বলে উইকেটের পেছনে ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দারুণ এক ক্যাচ নেন উইকেটরক্ষক সরফরাজ আহমেদ। ১২৩ বলে ৬ চারে ৪৯ রান করেন মাহমুদউল্লাহ। মুমিনুল-মাহমুদউল্লাহ তৃতীয় উইকেট জুটিতে আসে ৯৫ রান।

আজ বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট অভিষেক হয়েছে ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও বোলার মোহাম্মদ শহীদের। আর পাকিস্তানের হয়ে ব্যাটসম্যান সামি আসলামের। পাকিস্তান দলে নেই সাঈদ আজমল।

বাংলাদেশ দল : মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, শুভাগত হোম, সৌম্য সরকার, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ শহীদ।

পাকিস্তান দল : মিসবাহ-উল-হক (অধিনায়ক), ইউনুস খান, সামি আসলাম, মোহাম্মদ হাফিজ, আজহার আলী, সরফরাজ আহমেদ, আসাদ শফিক, ওয়াহাব রিয়াজ, জুনাইদ খান, ইয়াসির শাহ ও জুলফিকার বাবর।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৬ বছরের জয়খরা কেটেছে বাংলাদেশের। প্রথমবারের মতো ওয়ানডে সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি জিতে নিয়েছেন টাইগাররা। এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো টেস্ট জিততে চান সাকিব-তামিম-মুশফিকরা।


আপনার মতামত

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*


Email
Print